রোনালদোর প্রতি ভক্তের খোলা চিঠি!

“আপনার সাথে আমার পরিচয় টা অনেকদিনের। আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধু আপনার ভক্ত ছিলো, সাথে মেসিরও৷ ছোট ছিলাম, বন্ধুকে রাগানোর জন্য আপনাকে সহ্য করতে পারতাম না৷ অথচ এখন আপনার নামে কেউ সামান্য কিছু বললেও নিতে পারি না, ক’বে যে আপনাকে অনুপ্রেরণা মানা শুরু করলাম স্মরণ আসছে না।

আপনি ম্যানচেস্টারের লাল দূর্গে বিজয়ের কেতন উড়ালেন৷ সবাইকে নাস্তানাবুদ করে ফুটবল পায়ে দূর্বার গতিতে এগিয়ে যেতে থাকলেন। অথচ আপনার ত এইপৃথিবী তে আসার কথাই ছিলো না, অভাবী পরিবারে জন্মেছেন বলে আপনার মা গর্ভেই আপনাকে অপসারণ করতে চাইলেন। অথচ সেই মা’ই এখন আপনার সবচেয়ে কাছের। আপনার সাফল্যের সাথি, দুঃখে একসাথে কাঁদেন, আপনাকে সাহস যোগান। ছোটবেলায় আপনার মদ্যপ বাবাকে বলেছিলেন, “বড় হয়ে মাইকেল জ্যাকসনের মতো বাড়ি বানাবেন।“ আপনার বাবা হাসলেন! আপনার শিক্ষক আপনাকে বললো, ফুটবল তোমাকে কখনোই স্বাবলম্বী করবে না। আপনার মদ্যপ বাবা আজ আর নাই, আপনার অজয় হওয়ার মিছিলে সামিল হতে পারলেন না৷

এই ত সেদিন লাল কেল্লা ছেড়ে শুভ্র সম্রাজ্যে পাড়ি জমালেন। রাজকুমার হয়ে এসেছিলেন, নয়টা বছর রাজ্য চালিয়ে সম্রাট হলেন। আবারো রাজমুকুট খুলে ফেলে নতুন রাজ্যে পাড়ি জমালেন। নতুন সফর, দেশ থেকে দেশান্তরে!

এক বনে দুই সিংহ থাকতে পারে না, একটা সময় ফুটবলের অন্য সিংহ ঠিকই আপনার চেয়ে এগিয়ে গেলো। শ্যাম্পুর সেই ট্রল থেকে শুরু করে পত্রিকার পাতায় হাজারও বার আপনার শেষ দেখে ফেলেছিলো আপনার শুভাকাঙ্ক্ষীরা। কিন্তু ঠিকই আপনি ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন। লিওনেল মেসি নামক এক অতিমানবকে ছুঁয়েছেন, টপকে গেছেন। মুখের সামনে থেকে শিরোপা ছিনিয়ে নিয়ে বন্য উল্লাসে ফেটে পড়েছেন।

ছোটবেলায় আপনি গোল করতে না পারলেই কেঁদে দিতেন, বড় হয়েও এই সেরা হওয়ার অভ্যাস টা একটুও বদলায় নি আপনার। এখনো জেতার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেন, ছেলেমানুষের মতো কখনো না পারার দুঃখে কেঁদে ফেলেন। কিন্তু হার মানেন না, আপনার রক্তে এই শব্দটা হয়তো বা নেই!

আপনি এখন আর আমার দলে খেলেন না। কতদিন হয়েছে কাউকে বলতে পারিনা “ দেখিস আমরাই ম্যাচ জিতবো, আমার ক্রিস আছে না “ জানি আর তা কখনোই সম্ভব না। আপনি চলে গেছেন, অনেক দূরে। আর ফিরবেন না, আর কখনো আমায় হাসাবেন না। আর কখনো আমার দলের জন্য সুসময় বয়ে আনবেন না।

আমি আপনার দল কখনোই সাপোর্ট দিতে পারবো না, আপনার জন্যই ত রিয়াল মাদ্রিদ আমার অস্থিমজ্জার সাথে জুড়ে গিয়েছিলো, কিভাবে তা ছেড়ে চলে আসি বলবেন?

আপনি জানেন নিশ্চয়ই, আমার দল টা আপনাকে ছাড়া ভালো নাই। আপনিও ত একদম ভালো নেই, কি এক দলে গেছেন, আপনাকে যারা একটুও বুঝে না, আপনার মতো জেতার ক্ষুদা যাদের নাই। অথচ আপনি এদের নিয়ে বিশ্বসেরার মুকুট ছিনিয়ে আনার স্বপ্ন দেখান!

আপনি জানেন, আমি শেষ কবে আপনার খেলা ঠিকমতো দেখেছি? কিংবা আমার দল রিয়াল মাদ্রিদের? জানি আপনি জানেন না। কিন্তু আমি এখনো মাদ্রিদের বা পাশে আপনাকে খুঁজে বেড়াই। আপনিও হয়তো মার্সেলো, রামোসদের!

বনের আরেক সিংহ মেসি আজ আপনাকে টপকে গেলো, হয়তো বা আরেকটু দূরে এগিয়ে যাবে। আপনি হয়তো চেয়ে থাকবেন, আবারও এগিয়ে যেতে চাইবেন। হয়তো আর পারবেন না, কে জানে!

ইদানীং বড্ড খাপছাড়া হয়ে গেছি, অনুভূতিহীন মানুষ। আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গা টা আমায় আর টানে না। ক্রিকেট দেখিনা তেমন, ফুটবলেও মন বসে না। আমার দল নাবিকশুন্য, আপনার ত জাহাজ টাই নষ্ট!

লিওনেল মেসি ফিফা দ্য বেস্ট জিতলো, ব্যালন ডি অরও জিতবে। আমি চাই আপনি সেদিন মঞ্চে আসেন। আপনার সামনে থেকে হাসতে হাসতে আপনার স্বপ্ন ছিনিয়ে নিক। আপনার হার টা আপনার সামনেই হোক।

আপনি শেষ কেঁদেছিলেন ২০১৩ তে ব্যালন জয়ের পর। আমি আপনার বিদায়ের দিন। অনেকদিন হয়েছে কান্না করি না, আপনার জন্য গলা ফাটাই না, রাত জেগে আর পাগলামি করি না, আপনি চলে যাওয়ার পর ভূলে গেছি সব!

বুড়ো হয়েছেন, দলটাও চলে না!
তবুও চাই অন্তত শেষবার উঠে দাঁড়ান, রুখে দাঁড়ান। হোক একবার, কিংবা তার চেয়ে বেশী!