সিলেট থান্ডার্সকে নেতৃত্ব দেবেন সৈকত

0
14

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে সিলেট থান্ডার্সকে নেতৃত্ব দেবেন সৈকত। তবে নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই নিয়মত ক্রিকেটার। নতুন দায়িত্বে জয়ের চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন সিলেট অধিনায়ক।

আগামীকাল বুধবার বিপিএলের প্রথম ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে সিলেট থান্ডার। মূল ম্যাচকে সামনে রেখে আজ মঙ্গলবার নিজেদের পরিকল্পনার কথা জানালেন সিলেট অধিনায়ক।

আজ অনুশীলনের শেষে মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, “আমরা প্রথম থেকেই সবাই জানি এটি চ্যালেঞ্জিং টুর্নামেন্ট। অধিনায়ক হিসেবে মনে করি আমাদের দলের জন্যও চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। আমরা জয়ের জন্যই নামব। জয়ের চ্যালেঞ্জই আমার কাছে সবচেয়ে বড়।”

সিলেট নিয়ে নিজের সন্তুষ্টির কথা জানিয়ে অধিনায়ক বলেন, “আমার মনে হয় আমরা ভালো একটা দল। কাল ভালো একটা ম্যাচ খেলব। এখানে সব দলই ভারসাম্যপূর্ণ। কারো বিদেশি খেলোয়াড় ভালো, কেউ আবার দেশি খেলোয়াড় ভালো নিয়েছে। আমি মনে করি সব দলই একইরকম। সব দলেই ভারসাম্য আছে।”

তিনি আরো বলেন, “স্থানীয় খেলোয়াড়দের ম্যাচে সাফল্য এনে দেওয়ার সামর্থ্য অবশ্যই আছে। আমাদের দলে তিন-চারজন আছে যারা জাতীয় দলে খেলছে। জাতীয় দলে ঢুকবে এমনও কয়েকজন আছে। এছাড়াও যারা আছে ওরাও একসময় খেলেছেন। বিদেশিরাও নিজ দেশের জাতীয় দলের খেলোয়াড়। তাই আমি মনে করি টুর্নামেন্টে লড়াইর করার মতো সামর্থ্য আমাদের আছে।”

এদিকে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও সিলেট থান্ডারের ম্যাচ দিয়ে আসন্ন বিপিএল মাঠে গড়াবে। অবশ্য টুর্নামেন্টের প্রথম দিনে দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। একই দিন রাতে আরেক ম্যাচে মুখোমুখি হবে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স ও রংপুর রেঞ্জার্স।

৩৯ দিনের এই টুর্নামেন্টে খেলবে সাতটি দল। তিনটি ভেন্যুতে হবে ম্যাচগুলো। ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে ক্রিকেটাররা লড়াইয়ে নামবে।

এবারের বিপিএলে মোট ৪৬টি ম্যাচ থাকছে। ঢাকায় ২৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আর চট্টগ্রামে ১২টি ও সিলেটে হবে ছয়টি ম্যাচ। ১১ ডিসেম্বর শুরু হওয়া এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে ১৮ জানুয়ারি।