সিনিয়র ক্রিকেটারদের পারফর্মেন্সে হতাশ বিসিবি সভাপতি

সিনিয়র ক্রিকেটারদের পারফর্মেন্সে হতাশ বিসিবি সভাপতি। জানালেন বিশ্বসেরা স্পিনারদের নিয়ে গড়া আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরিকল্পনা ভুল ছিলো টিম ম্যানেজমেন্টের। বরং স্পোর্টিং উইকেটে পেসার নিয়ে খেললে পরিস্থিতি ভিন্ন হতো বলে মত নাজমুল হাসানের। ত্রিদেশীয় টি টোয়েন্টিতে নতুন ক্রিকেটারদের সুযোগ দিয়ে পরিবর্তনের সূচনা করতে চান বিসিবি বস।

সেরা প্রস্তুতি নিয়েই আফগানিস্তানের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ চট্টগ্রাম টেস্টের আগে বহুবার এ কথা উচ্চারণ করেছিলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। তবে তিন ডিপার্টমেন্টেই ব্যর্থতার সাথে লজ্জার পরিণতির সামনে টিম টাইগার্স।

উইকেট নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তবে বিসিবি সভাপতির চোখে দোষটা পরিকল্পনায়। যে দলে বিশ্বসেরা স্পিনার আছে তাদের বিপক্ষেই স্পিন ফাঁদ তৈরি করা ঠিক মনে হয়নি নাজমুল হাসানের। কাঠগড়ায় পুরো টিম ম্যানেজমেন্ট।

ব্যাটসম্যানরাও দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে বলেই মনে করেন নাজমুল হাসান। সাকিব, মুশফিক ও মাহমুদুল্লাহর মতো সিনিয়ররা প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ; প্রশ্ন তুলেছেন লংগার ভার্সনে লিটন-সৌম্যদের যোগ্যতা নিয়েও।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর লঙ্কায় ভরাডুবি, সবশেষ চট্টগ্রাম টেস্ট ক্রমশ নিম্নমুখী পারফর্মেন্সে হতাশ নাজমুল হাসান পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিলেন। টেস্টে আলাদা দল আর তরুণ ক্রিকেটারদের যুক্ত করার উদ্যোগের কথা জানালেন যার শুরুটা ত্রিদেশীয় টি টোয়েন্টি থেকে।

চট্টগ্রাম টেস্টের পর টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে আলোচনায় বসবেন বোর্ড সভাপতি। যেখানে সিনিয়র ক্রিকেটারদেরও বিসিএল ও এনসিএল খেলতে উৎসাহিত করা হবে।