রোনালদো যা ইচ্ছা তাই করতে পারে : পিরলো

0
8

জুভেন্টাস কোচ আন্দ্রে পিরলো বলেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর মত তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন থাকতেই পারে। রোনালদো তার ব্যক্তিগত জীবনে যা ইচ্ছা তাই করতে পারেন, এখানে আমার কিছুই করার নেই।

সপ্তাহের শুরুতে করোনাভাইরাস প্রোটোকল ভঙ্গ করে রোনালদো তার বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজকে নিয়ে একটি মাউন্টেন রিসোর্টে পুরো দিন উদযাপন করেছেন বলে ইতালিয়ান গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক রিপোর্টে বলা হয়েছে।

পিরলো বলেন, “রোনালদোর সে দিন ছুটি ছিল। সে তার ব্যক্তিগত জীবনে যা ইচ্ছা তাই করতে পারে। মাঠের বাইরে প্রত্যেকেরই স্বাধীনতা আছে। প্রতিটি ফুটবলারেরই তাদের নিজস্ব দায়িত্ব নেবার অধিকার আছে।”

কার্যত জর্জিয়ার জন্মদিন পালনের উদ্দেশ্যেই জুভেন্টাস থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে একটি রিসোর্টে সারাদিন ছুটি কাটিয়েছিলেন রোনাল্ডো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের দুজনের একটি ছবি প্রকাশ পেয়েছে যেখানে পর্বতে বরফের মধ্যে তাদের দুজনকে একসাথে গাড়ি চালাতে দেখা যাচ্ছে। ইতালির বর্তমান করোনাভাইরাস আইনানুযায়ী তাদের তুরিন শহর ত্যাগ করার কথা নয়। বিশ্বের অন্যতম ব্যয়বহুল এই খেলোয়াড় ও তার বান্ধবীকে প্রত্যেককে এখন কমপক্ষে ৪০০ ইউরো পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হতে পারে।

বেশ কিছু গণমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী জানা গেছে রোনাল্ডোর বিষয়টি নিয়ে পুলিশি তদন্ত পর্যন্ত হতে পারে। এর আগেও করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিতর্কে জড়িয়েচিলেন ৩৫ বছর বয়সী রোনাল্ডো। গত অক্টোবরে দুটি ভাইরাস কেসে জুভেন্টাস যখন আইসোলেশনে ছিল ঠিক ঐ সময় রোনালদো পর্তুগাল সফর করে সমালোচিত হয়েছিলেন।

এরপরপরই রোনালদো নিজেই করোনা পজিটিভ হন এবং ইতালিতে ফিরে এসে নিজ ঘরে দুই সপ্তাহ আইসোলেশনে কাটান। ঐ সময় ইতালিয়ান ক্রীড়ামন্ত্রী ভিনসেনজো স্পাডাফোরা করোনাভাইরাস আইন ভঙ্গের জন্য রোনালদোকে অভিযুক্ত করেছিলেন।