ব্রাজিলের সঙ্গে বাংলাদেশের ম্যাচ খেলানোর চেষ্টা করছে বাফুফে

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখে ইউরোপের দলগুলো নয় বরং লাতিন দুই পরাশক্তিকে বাংলাদেশে আনার চেষ্টা করছে ফুটবল ফেডারেশন। সেই অনুযায়ী শুরু হয়েছে প্রাথমিক আলোচনা। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী জানালেন, বাংলাদেশের সাথেও যে কোন একটি দলের ম্যাচ খেলানোর চেষ্টা চলছে। এদিকে, চূড়ান্ত হয়েছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সময়। ২১ থেকে ২৯ নভেম্বর হবে আন্তর্জাতিক এই আসর।

ফুটবলের জন্মটা ইংল্যান্ডে হলেও শৈল্পিক আর নান্দনিক ফুটবলের উৎপত্তি লাতিন আমেরিকায়। ঐ উপমহাদেশের দুই দেশ আর্জেন্টিনা আর ব্রাজিলের কথা আসলেই ফুটবলপ্রেমীরা হয়ে যান বিভক্ত।

এর আগে ২০১১ সালে বাংলাদেশে এসেছিলো আর্জেন্টিনা। নাইজেরিয়ার সাথে লিটল ম্যাজিশিয়ান লিওনেল মেসির পায়ের জাদু দেখেছিলো ঢাকার দর্শকরা।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখে দুই লাতিন বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে ঢাকায় প্রীতি ম্যাচ খেলানোর স্বপ্ন দেখছে ফুটবল ফেডারেশন।

ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহসভাপতি, সালাম মুর্শেদী জানান, ফিফা সূচী অনুযায়ী ১১-১৯ নভেম্বর প্রীতি ম্যাচ খেলতে পারবে দলগুলো। ওই সময়কেই বেছে নিতে চায় বাংলাদেশ। আর্জেন্টিনা চলে গেলে ব্রাজিলের সঙ্গে বাংলাদেশের ম্যাচ খেলানোর চেষ্টাও করছে ফেডারেশন। সাবেক দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে আনতে মধ্যস্থতা করছে বিশ্বব্যাংক।

এদিকে ২ দফা পিছিয়েছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের এবারের আসর। সবশেষ শেখ কামাল ক্লাব কাপের জন্য এই টুর্নামেন্ট পিছিয়ে দেয় ফেডারেশন। এবারের আসরের কলেবর বাড়াতে চায় ফেডারেশন। এশিয়ার ৪ অঞ্চলের দল নিয়ে আয়োজন করা হবে ৬ষ্ঠ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ।

তবে আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা থাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপে মানসম্মত দল পাওয়া নিয়ে সন্দিহান ফুটবল ফেডারেশন।