ব্যালন জয়ের মুহূর্তে উড়ছেন লিওনেল মেসি!

0
149

ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটনে মৌসুমের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ঘরের মাঠে অতিথি বার্সেলোনার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ৷

ম্যাচের আগে লা-লিগার টেবিলে বার্সেলোনার অবস্থান ছিলো দ্বিতীয় আর অ্যাটলেটিকো ছিলো ৬ষ্ঠ স্থানে। ম্যাচের শুরুতেই আলভারো মোরাতার শট বার ঘেষে বাইরে চলে যায়। একটু পর আবারো  অ্যাটলেটিকোর আক্রমণ রুখে দেয় বার্সার ডিফেন্ডাররা, ঐদিকে মেসি-সুয়ারেজদের সামনে দেয়াল হয়ে দাঁড়ান ফিলিপে, সাউলরা ৷ ৭ম মিনিটে হারমোসোর শট স্টেগানকে ফাঁকি দিতে পারলেও বারে লেগে সাইডলাইনের বাইরে চলে যায়, ২০তম মিনিটে হারমোসোর আবারো আক্রমণ, এবার বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় টার স্টেগান।

আক্রমণ প্রতি আক্রমণে ম্যাচ চলতে থাকে। কখনো ঘরের মাঠে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের এগিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টা কখনো বা এ্যাওয়ে ম্যাচে মূল্যবান ৩ পয়েন্টের আশায় বার্সার আক্রমণ। ২৭তম মিনিটে মেসির পাসে রাকিটিচের শট ফাঁকি দিতে পারেনি অবলাককে, ৩৬তম মিনিটে সুয়ারেজের দুরন্ত শট বার ঘেষে চলে যায়। তবে ৩৯তম মিনিটে আবারো অ্যাটলেটিকোর আক্রমণ, মোরাতার অসাধারণ হেড ঠেকিয়ে দেন স্টেগান, ৪২তম মিনিটে আবার পিকের হেড অবলাককে পার করতে পারলেও আঁটকে যায় বারে লেগে৷ প্রথমার্ধে তাই দুই দলকেই গোলশূন্য অবস্থায় ডেসিংরুমে ফিরতে হয়৷

দ্বিতীয়ার্ধেও দু’দলের ম্যাচে আধিপত্য চলতে থাকে। এরই মধ্যে ৫১তম মিনিটে মোরাতাকে ফাউল করে কার্ড দেখেন রাকিটিচ। ৫৯তম মিনিটে মেসির একক প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন অবলাক, ২ মিনিট পরে সুয়ারেজের শটও থমকে যায় অবলাকের সামনে। ৭ মিনিট পর গোলবারের সামনে শুধু অবলাককে পেয়েও সুয়ারেজের পাসে বল পেয়েও সাইডলাইনের বাইরে বল পাঠান গ্রীজম্যান৷

ম্যাচের সময় যতই বাড়তে থাকে দু’দলের খেলাই ততো জমে যায়। এটলেটিকোর দেয়াল ভাঙতে ঘাম ছুঁটে যায় ভালভার্দের শিষ্যদের। তবে ৮৬তম মিনিটে অতিথিদের আর আটঁকে রাখতে পারেননি সিমিওনের শিষ্যরা। মেসির অসাধারণ সোলো রানের সাথে সুয়ারেজের সাথে ওয়ান টু ওয়ান পাসে বক্সের বাইরে থেকে লিওনেল মেসির বাম পায়ের জোরালো শটে বল জালে। যে শট আটঁকে রাখতে পারেননি জন অবলাকও!

Image result for lionel messiওয়ান্ডা মেট্রোপলিটনে গোল করে লা-লিগায় ভিন্ন ৩৮ টি স্টেডিয়ামে গোল করার রেকর্ড গড়লেন লিওনেল মেসি৷

সবমিলিয়ে এই মৌসুমে ৫ এসিস্টের পাশাপাশি গোল পেয়েছেন ৯ টা। অন্যদিকে ৪ এসিস্টের সাথে ১০ গোল নিয়ে আপাতত সেরা গোল সংগ্রাহক রিয়াল মাদ্রিদের করিম বেনজেমা। তবে বেনজেমা যেখানে ১১২৪ মিনিটে খেলে প্রতি ১১২ মিনিটে গোল পেয়েছেন সেখানে মাত্র ৭২০ মিনিট খেলে প্রতি ৮০ মিনিটেই গোলের দেখা পেয়েছেন আজ রাতে সম্ভাব্য ব্যালন ডি অর জয়ী লিওনেল মেসি।

সব ঠিক থাকলে হয়তো ক্যারিয়ারের ৬ষ্ঠ বারের মতো বর্ষসেরার খেতাব অর্জন করতে যাচ্ছেন সর্বকালের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার!

এই নিয়ে ১৪ ম্যাচ শেষে ১০ জয় ৩ হার আর ১ ড্রয়ে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে টেবিলের শীর্ষে ভালভার্দের বার্সেলোনা।

সমান ম্যাচে ৯ জয়ের পাশাপাশি ৪ ড্র আর ১ হার নিয়ে সমান ৩১ পয়েন্ট নিয়েও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকার কারনে টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ।