তীরে এসে তরী ডুবলো বাংলাদেশের

0
51

এশিয়ান কাপ যৌথ বাছাইপর্বের ম্যাচে ভারতের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে বাংলাদেশ। কলকাতার যুব ভারতী ক্রীড়াঙ্গনে ভারতের বিপক্ষে ১-১ গোলে ম্যাচটি ড্র করে জেমি ডের শীর্ষরা। খেলার ৮৮তম মিনিট পযর্ন্ত নিজেদের জাল অক্ষত রেখেছিলো বাংলাদেশের ডিফেন্ডাররা। কর্নার থেকে বাড়ানো বলে ভারতের হয়ে সমতায় ফেরান তাদের ৬ নাম্বার জার্সিধারী ডিফেন্ডার আদিল খান।

খেলার শুরু থেকে জেমি ডে রক্ষন কৌশলে খেলতে থাকেন৷ রক্ষন থেকে কাউন্টার অ্যাটাকে উঠার পরিকল্পনা করে পুরো বাংলাদেশ দল। অন্যদিকে ভারতীয় কোচ পুরো আক্রমনাত্মক দল সাজিয়েছিলেন এবং সে অনুযায়ী খেলছিলেন।বাংলাদেশ দল প্রথম ২০ মিনিটেই দুই গোলের ব্যবধানে এগিয়ে যেতে পারতো কিন্তু পেনাল্টি থেকে বঞ্চিত হওয়ায় তা আর হয়ে উঠেনি। কিন্তু ৪২তম মিনিটে আসে সেই সুযোগ।

জামাল ভূইয়ার ফ্রি-কিক থেকে বাড়ানো বলটি ভারতীয় গোলরক্ষক আর ডিফেন্ডার ধরতে না পারলে হেড থেকে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন উইংগার সাদ উদ্দিন। আর্ন্তজাতিক ফুটবলে এটিই তার প্রথম গোল।

কলকাতার মাঠের ৬৫তম হাজার দর্শক তার গোলে নিশ্চুপ হয়ে যায়। জয়ের আশা নিয়ে মাঠে আসলেই পিছিয়ে যাওয়া তাদের কাছে ছিলো অবাক করার মত। ১মআর্ধে কোনো দল আর গোল পায়নি৷ ২য় আর্ধের শুরু থেকে ভারত গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠে।

আক্রমনের গতি বাড়িয়ে দেয় ভারতীয় ফুটবলাররা। তাদের স্ট্রাইকারদের সাথে পাল্লা দিয়ে খেলতে থাকে বাংলাদেশের ডিফেন্ডরা। দুই সাইডে রায়হান এবং ইবরাহিম অসাধারন খেলেছেন। লং থ্রো নিয়েছেন রায়হান হাসান৷ ইব্ররাহিম আক্রমনে গিয়ে ক্রস বাড়িয়েছেন সাথে ডিফেন্সে ট্যাকেলও করেছেন অসাধারন৷ মাঝে ইয়াসিন খান আজ নিজের সেরাটা দিয়েছেন৷

ভারতীয়রা বরাবর চেষ্টা করলেও সুযোগ হয়ে উঠছিলো না তাদের। ৮৮তম মিনিটে কর্নার পায় ভারত। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল হেড করে জালে জড়ান ভারতীয় ডিফেন্ডার আদিল খান। এতেই জয় বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ দল। নাহলে ৩৪বছর পর ভারতের মাটিতে খেলতে নামা বাংলাদেশ দল জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তো।