তরুণদের জায়গা করে দিতে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নবীর

বাংলাদেশের বিপক্ষে হয়তো নিজের টেস্ট পারফর্মেন্স মনোমুগ্ধকর ছিলনা, কিন্তু নিজ দল আফগানিস্তানকে জয় উপহার দিয়ে টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন মোহাম্মদ নবী। চট্টগ্রামে শেষ হওয়া একমাত্র টেস্টে স্বাগতিক বাংলাদেশকে ২২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করেছে টেস্ট পরিবারের নতুন সদস্য আফগানিস্তান।

ম্যাচের দুই ইনিংসে ব্যাট হাতে যথাক্রমে শুন্য ও ৮ রান করেছিলেন আফগান অল রাউন্ডার। তবে বল হাতে প্রথম ইনিংসে ৫৬ রান দিয়ে তিনটি এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯ রান দিয়ে এক উইকেট সংগ্রহ করেছেন নবী।
টেস্ট মর্যাদা পাওয়া আফগানিস্তানের হয়ে এ পর্যন্ত তিনটি টেস্টের সব কটিতেই অংশগ্রহন করেছেন মোহাম্মদ নবী। তবে লংগার ভার্সনের এই ক্রিকেটে বলার মত কিছুই করতে পারেননি তিনি। তিনটি টেস্ট থেকে তার সংগ্রহ মাত্র ৩৩ রান ও ৮ উইকেট।

তবে নতুন সদস্যপদ পেয়েই আফগানিস্তান তাদের প্রথম তিন টেস্টের দুটিতে জয়লাভ করায় দারুন খুশি নবী। যা টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে তাকে গর্বিত করেছে। ৩৪ বছর বয়সি আফগানিস্তান দলের সাবেক এই অধিনায়ক তরুণদের সুযোগ করে দেয়ার জন্যই টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দিচ্ছেন উল্লেখ করে বলেন, ‘আমি আফগানিস্তানের হয়ে টেস্ট খেলার স্বপ্ন দেখতাম। কম সময়ের মধ্যেই এ জন্য আমরা প্রচুর পরিশ্রম করেছি। ১৩ বা ১৪ বছর নয়, মাত্র সাত থেকে আট বছরের মধ্যেই আমরা এটি অর্জন করেছি। ’

নবী বলেন, ‘আমাদেরকে প্রচুর সংগ্রাম করতে হয়েছে। সম্মিলিত দলীয় কম্বিনেশন নিয়ে মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে হয়েছে। তিন বার ইন্টার কন্টিনেন্টাল কাপে খেলতে হয়েছে, যার দুটিতেই আমরা শিরোপা জয় করেছি। আর একবার রানার আপ হয়েছি। এটি ছিল সত্যিকার অর্থেই ভাল ফলাফল। যে কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) আমাদেরকে টেস্ট স্ট্যাটাস দিয়েছে। আফগানিস্তানের এই প্রজন্মের অংশ হতে পেরে আমি সত্যি গর্বিত।’

নবী বলেন, ‘আমার পরিকল্পনা হচ্ছে আগামীর জন্য তরুণদের প্রস্তুত করা। কারণ তারাই আমাদের ভবিষ্যৎ। এ কারণেই আমি টেস্ট ছেড়ে দিচ্ছি এবং ওয়েনাডে ও টি-২০ ক্রিকেটের দিকে মনোযোগ দিচ্ছি।’