কোপায় যেমন হতে পারে ব্রাজিলের একাদশ

ব্রাজিলের কোপা আমেরিকার দল ঘোষণা করা হয়েছে। দলে জায়গা হয়নি লেফট ব্যাক মার্সেলোর। ব্যক্তিগতভাবে আমি ব্রাজিল দলে মার্সেলোকে চাই না।

সে নামা মানে লেফট ফ্ল্যাংক অরক্ষিত থাকা। বারবার ওভারলেপ করে উপরে চলে যায়, তখন কাউন্টারে গোল খাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। গত সিজনে বায়ার্ন আর রিয়ালের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের খেলা যদি কারো মনে থাকে তাহলে খেয়াল করলে দেখবেন দুই লেগেই বায়ার্নের রাইটব্যাক কিমিচ এসে গোল দিয়ে গেছে। শেষমেষ ম্যাচ জিতে যাওয়াও এগুলা হয়ত চোখে লাগে নাই। ব্রাজিলের নকাউট ম্যাচে এমন ভুল করলে একদম ক্রসফায়ার।

এবার দলে লর্ড নাই তেমন। লর্ড ফার্নান্দিনহো যিনি গত বিশ্বকাপে ব্রাজিলের হয়ে  ওউন গোল করে অনেক অবদান রাখেন তিনি জায়গা পেয়েছেন। তার জায়গায় আমি লিভারপুলের হয়ে অসাধারণ মৌসুম কাটানো ফ্যাবিনহোকে দেখতে চেয়েছিলাম।

আর নামীদামীদের মধ্যে জায়গা পায়নি ভিনিসিয়াস জুনিয়র। সে মাত্রই ইঞ্জুরি থেকে আসছে আর তার ফিনিশিং বেশ দুর্বল। বয়স কম। না পাওয়াটা খুব বেশি অবাক করা না।

আমার পছন্দের একাদশ:
গোলকিপার – এলিসন
লিভারপুলের হয়ে অসাধারণ মৌসুম কাটিয়েছে। প্রিমিয়ারলীগ ইতিহাসের ২য় সর্বোচ্চ ২১ ক্লিনশিট রাখার কৃতিত্ব দেখিয়েছে।
রাইটব্যাক – আলভেস
লেফটব্যাক – সান্দ্রো
দুইজনই নিজ নিজ লীগে ভালো করেছে। দানি আলভেসের লং শুট এবিলিটি বেশ ভালো। অন্য দিকে সান্দ্রোর ডিফেন্সিভ ওয়ার্ক ভালো।
সেন্টারব্যাক – সিলভা, মিলিতাও
সিলভা অটো চয়েজ| অসাধারণ একজন নেতা। অন্যদিকে মিলিতাও পোর্তোর হয়ে ভালো একটা মৌসুম কাটিইছে। পরবর্তী মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদে যোগদান করবে। পর্তুগিজ লীগের ডিফেন্ডার অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়েছে। অন দ্য এয়ারে বেশ ভালো, রাইটব্যাক পজিশনেও খেলতে পারে।

মিডফিল্ড – ক্যাসামিরো, আর্থুর, কৌতিনহো
ক্যাসামিরোর এই সিজন ভালো যায় নাই তেমন। কিন্তু সে ভালো। তার বেস্ট পসিবল অল্টারনেট হতে পারত ফ্যাবিনহো কিন্তু দলে নাই। অন্যদিকে রাইট মিডে আর্থুর বার্সেলোনায় এবার ভালোই খেলেছে। লেফট মিডে কৌতিনহো ভালো খেলার কথা যদিও ফর্ম তার পক্ষে কথা বলছে না এই সিজনে। তবে বক্সের বাইরে থেকে তার লং শুটে যে কোনো সময় দলের জন্য ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে পারে।

এট্যাক – নেইমার, ফিরমিনো, নেরেস
নেইমার অটো চয়েজ। তাকে নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নে। রাইট উইংয়ে আয়াক্সের হয়ে স্টার পারফর্মার ছিল নেরেস। বড় বড় ক্লাবগুলো তাকে কিনার জন্য টাকার বস্তা নিয়ে বসে আছে। গতি অসাধারণ। স্ট্রাইকার পজিশনে আমি জেসুসের বদলের ফিরমিনোকে চাইব। অন দ্য এয়ারে ফিরমিনো বেশ কার্যকরী। তাছাড়া ফিজিক্যাল এবিলিটিও ভালো। প্লেমেকিং ক্ষমতাও খারাপ না।
কৌতিনহো যদি ভালো না করে সেখানে জায়গা পাবে পাকুয়েতা। অনেকেই তার মধ্যে রিকার্ডো কাকার ছায়া দেখেন। ব্রাজিলের হয়ে এর মধ্যেই অভিষেক হয়েছে এবং গোলও করেছে এসি মিলানের এই মিড ফিল্ডার।