করোনা পরীক্ষায় সাকিবের পাস

0
14

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস পরীক্ষায় পাস করেছেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

গত মঙ্গলবার রাতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় আসেন সাকিব। দেশের বিমান ধরার আগে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিলো তার। সেখানে ‘নেগেটিভ’ ফল পেয়েছিলেন সাকিব।

আর দেশে এসে আরো একবার করোনা পরীক্ষা করতে হয়েছে সাকিবকে। কারণ বিকেএসপিতে অনুশীলন করতে নামবেন তিনি। গতকাল বিকেলে বনানীতে নিজের বাসা থেকেই করোনা টেস্টের জন্য নমুনা দেন সাকিব।

সাকিবের সেই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ এসেছে। অর্থাৎ, তিনি করোনা আক্রান্ত নন। তাই অনুশীলনে নামতে আর কোনো বাধা থাকলো না সাকিবের।

আগামী ৫ সেপ্টেম্বর থেকে বিকেএসপিতে ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু করবেন সাকিব। ৪ থেকে ৫ সপ্তাহ বিকেএসপিতে ব্যক্তিগত অনুশীলন করবেন তিনি।
জুয়াড়ির তথ্য গোপন করায় গেল বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে আইসিসি কর্তৃক এক বছরের নিষেধাজ্ঞা পান সাকিব। আগামী ২৯ অক্টোবর সাকিবের এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে।

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে শ্রীলঙ্কার মাটিতে টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ঐ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট থেকে সাকিবকে খেলানোর পরিকল্পনা আছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)। ক্রিকেটে ফেরার সময় ঘনিয়ে আসায়, বিকেএসপিতে ফিটনেস নিয়ে কাজ করবেন সাকিব।

বাংলাদেশের হয়ে গেল বছরের ২১ সেপ্টেম্বর সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছেন সাকিব। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-২০ ম্যাচ ছিলো সেটি। ঐ ম্যাচে অধিনায়কত্ব করা সাকিব ১ উইকেট ও ৪৫ বলে অপরাজিত ৭০ রান করে বাংলাদেশকে ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের স্বাদ দেন। ঐ সিরিজের সেরাও হয়েছিলেন তিনি। ঐ সিরিজের আরেক দল ছিলো জিম্বাবুয়ে।

আর লাল-সবুজ জার্সিতে সাকিব সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন গেল বছরের জুলাইয়ে, ইংল্যান্ডের মাটিতে। সেটি ছিলো ওয়ানডে বিশ্বকাপ। ঐ বিশ্বকাপে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। আট ম্যাচে ৬০৬ রান করেন তিনি। বল হাতে ১১ উইকেট নেন সাকিব।

সাদা পোশাকে দেশের হয়ে সর্বশেষ টেস্ট সাকিব খেলেছেন ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে। চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ছিলো সেই টেস্টটি।

সিরিজের একমাত্র ম্যাচটি ২২৪ রানে জিতেছিলো বাংলাদেশ। দুই ইনিংসে সাকিব ১১ ও ৪৪ রান করেন সাকিব। বল হাতে ২ ও ৩ উইকেট নেন তিনি।