এনসিএল আপডেটঃ আজ শেষ হলো তৃতীয় দিনের খেলা

ঘরোয়া প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে নিজের অভিজ্ঞতার মূল্য অব্যাহত রেখেছেন বাঁ-হাতি অভিজ্ঞ স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। ন্যাশনাল ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) স্তর ১ ম্যাচে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে আজ রংপুর বিভাগের বিপক্ষে রাজ্জাকের চার উইকেট শিকারের সুবাদে শক্ত অবস্থানে পৌঁছে গেছে খুলনা বিভাগ।
৮১ রানে রাজ্জাকের ৪ উইকেট শিকারে প্রথম ইনিংসে রংপুর ২২৭ রানে গুটিয়ে যায়। জবাবে তৃতীয় দিন শেষে প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেটে খুলনা ১৯২ রান সংগ্রহ করায় ম্যাচটি ড্র’র দিকেই যাচ্ছে।

খুলনা এখনো ৩৫ রানে পিছিয়ে রয়েছে। তবে তাদের হাতে রয়েছে এখনো ৭ উইকেট। ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকার যথাক্রমে ২৯ ও ৮ রানে অপরাজিত থাকায় অবধারিতভাবেই লীড নেয়া পথে রয়েছে খুলনা।

দুই ওপেনার রবিউল ইসলাম রবি ও ইমরান উজ্জামান দুজনেই হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করে আউট হওয়ার আগে দলকে ১৩৬ রানের বড় সূচনা এনে দেন। রবি ৭৬ ও ইমরান ৭১ রান করে আউট হন।

এর আগে রংপুর আগের দিনের ৫ উইকেটে ১৬৯ রান নিয়ে দিন শুরু করে। তবে আজ মাত্র ৫৮ রান যোগ করে ২২৭ রানে গুটিয়ে যায়।

রাজ্জাকের চারটি ছাড়াও পেসার আল-আমিন হোসেন ও রুবেল হোসেন শিকার করে দু’টি করে উইকেট।
প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে রাশাহী বিভাগের বিপক্ষে চার উইকেট হাতে নিয়ে ২৪৯ রানে এগিয়ে আছে ঢাকা বিভাগ।

তৃতীয় দিনের খেলা শেষ হওযার আগে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে ২০৬ রান সংগ্রহ করে ঢাকা। তাইবুর রহমান ৬৭ ও সুমন খান ১ রানে অপরাজিত আছেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে শুরুটা ভাল করতে না পারলেও ৬৫ রান করে রকিবুল হাাসন ঢাকা বিভাগকে বড় রানের ভিত্তি গড়ে দেন।

৬ উইকেটে ১৭৩ রান নিয়ে দিন শুরু করা রাজশাহী শেষ পর্যন্ত ১৯৭ রানে গুটিয়ে গেলে প্রথম ইনিংস থেকে ৪৩ রানের লীড পায় ঢাকা।

রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেন মুশফিকুর রহিম। ওপেনার জহুরুল ইসলাম অমি করে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৪।

সুমন খান ৫০ রানে শিকার করেন ৫ উইকেট। সালাউদ্দিন শাকিল ৪৭ রানে নেন ৩ উইকেট।
এর আগে প্রথম ইনিংসে ২৪০ রান করে ঢাকা।